«

»

Sep ১৮

মসজিদ

মসজিদ, মসজিদ
কি ধাঁধাঁর ছোঁয়াচে নিষ্প্রভ হলো
পবিত্র রুহের জিকির।

অপ্রভ রুহধারী অগণিত প্রাণ
গুঞ্জরে গুন গুন, ‘আল্লাহ মহান’, ‘আল্লাহ মহান’।

এ তসবিতে নেই প্রাণ, তোতা পাখী গাওয়া গান
উধাও রাহমাহ, উধাও বারাকাহ -শুধু ‘আমি’ ‘আমি’ জয়গান
বাণী ও কর্ম হারিয়েছে পথ, তাই নিজ নামে হয় ধ্যান

সুকর্য নেই, বিকর্ষিত দলে দলে
ফিস ফিস করে নফসের কর্ষশ তান।

একি গ্লানি -একি ম্লানরূপ এখানে ওখানে
পূণ্য-পথে প্রতারণা

-মৌন মনে,

মাথা কি নত, না অন্য কিছু সেখানে?

যে মাথা নোয়ায় খোদার সামনে
ঠেকে না যে সেথায় স্থির,
নত শির যেন লুটায় শুন্যতায়
–অস্থির, তারই আপন মগন ভুবনে।

হেথা ঘেরি এ কী, দেখ আখিঁ মেলি,
অদূরে কারা জপিছে তন্ত্র-বুলি;

শকুন নতশিরে -স্বার্থ সাধনে মগন,
না বিড়াল তাপস শিকার-ধ্যানে নিটোল?

শ্বেত বস্ত্র হেথায় সেথায়, সুগন্ধে ছড়ায় গা
আলোর আভা দেয়ালে-ছাদে ছড়ায় বিত্ত-প্রভা
কোমল গালিচা, সাজানো স্তম্ভ, প্রশস্ত পরিবেশ,
সুবিমল এই অন্দরখানি এত রূপেরও পর
কি আঁধারে নিমজ্জিত,
কি ধাঁধাঁর ছোঁয়াচে তিরোহিত হেথা হতে,
পবিত্র রুহ?

______________

[নোটস: এ কবিতাটি সম্ভবত ১৯৯৬/৯৭ সালে লেখা। আজ রাসূলুল্লাহর (সা.) ভবিষ্যতবাণী সম্ভলিত হাদিস হামযা ইউসূফ সাহেবকে বর্ণনা করতে দেখলাম। মনে হল আমরা সেই যুগে উপস্থিত। এই যে যুদ্ধের সয়লাব, নারীকেন্দ্রিক ফিতনা, জ্ঞানীদের মোকাবেলায় ভাঁড়দের প্রাধান্য; মিথ্যাই সত্য, সত্যই মিথ্যা, মিথ্যা সাক্ষ্যের ভিত্তিতে বিচার ফয়সালা; পঙ্কপালের মত এসবে মানুষের হামাগুড়ি -এসব কীসের আলামত? ভিডিটি দেখে আমার অনেক আগের এই কবিতাটির কথা মনে হল এবং দেয়া হল। rel=”nofollow”>ভিডিও ক্লিপটি এখানে]

Leave a Reply

Your email address will not be published.