«

»

Dec ০৭

তোকেই চাই হে কৃষ্ণকলি

আমার বাড়ির সামনে দিয়ে যখোন হেঁটে যাস্ তুই
কাঁধে ঝুলিয়ে চকচকে ব্যাগ হাতে মোবাইল
মনোহর বারান্দায় বসে আমি তখোন পলকহীন
কাজল কালো নয়নে দেখি তোর পথ চলা
ঘাড় ছুঁই ছুঁই লম্বা চুল তার ছন্দিত নাচন।

আমার আকাশ ছিলো শান্ত তোকে দেখার আগে
রং বেরংয়ের ঘুড়িগুলো করেনি খেলা
বৃষ্টিভেজা ঝিরঝির বাতাস মগ্ন চৈতন্যে
তোলেনি সুরের আলোড়ন অসময়ে
গুনগুন করে গান গাওয়ার জাগেনি নেশা।

পড়াশোনা জীবন যাপন ছিলো রুটিন মাফিক
সময় কেটে যেতো সুনসান তোকে দেখার আগে
চশমাপরা প্রিয় কৃষ্ণকলি তোর মুচকি হাসি
হৃদয়ে ছড়িয়ে মায়াজাল লন্ডভন্ড করেছে
আমার কুসুমিত বাগান ঘুম নেই চোখে
মনের আয়নায় তোর ছায়া ঘুরপাক খায়
তড়িঘড়ি বেড়ে ওঠা এক স্বপ্ন বাসর।

হরিণ চোখে কাজল টেনে বসে আছি সারাবেলা
দুহাত বাড়িয়ে কৃষ্ণকলি খোপায় পড়েছি ফুল পায়ে নুপুর
খোলা আছে হৃদয় দুয়ার সময় বয়ে যায়।

বাতাসে তুলে প্রেমের ঝড় আয় সখা আয়
আমার অকর্ষিত ভূবন তোরই প্রতিক্ষায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.