«

»

Sep ০৭

কিসের আবার ট্রানজিট !

ওরা আমাদের স্বাধীনতা দিছেনা তাহলে কিসের আবার ট্রানজিট ! ওরা আমাদের দেশ নিয়ে হাসবে , খেলবে , মারবে কোন কারনে কক্ষনোই হবে না এর বিপরীত ! ওরা আমাদের স্বাধীনতা দিছেনা তাহলে কিসের আবার ট্রানজিট ! ওরা এদেশের একসীমান্ত দিয়ে ঢুকবে মাঝখানে আমাদের দেশের বুকের ওপর দিয়ে হাটবে তারপর অন্য সীমান্ত দিয়ে তাদের অংগরাজ্যে যাবে কিসের আবার চুক্তি এটাতো ওদের অধিকার কোন কারনে কক্ষনোই হবে না এর বিপরীত ! ওরা আমাদের স্বাধীনতা দিছেনা তাহলে কিসের আবার ট্রানজিট ! ওরা গুলী করে ফেলানীকে কাঁটাতারে ঝুলাবে পরিক্ষামূলকভাবে দেখার নামে আজীবনের জন্য ফারাক্বা বাঁধ চালু করবে তিস্তার নদীর পানিবণ্টন চুক্তি নাকরে সব পানি একাই নিবে যতই থাকুক তোমার সাথে পীরিত কোন সরকার পরিবর্তনে হবে না এর বিপরীত ! ওরা আমাদের স্বাধীনতা দিছেনা তাহলে কিসের আবার ট্রানজিট ! ওদের ডিশ চ্যানেল আমাদের প্রতি ঘরে ঘরে চলবে কিন্তু আমাদের চ্যানেলগুলো ওদের পশ্চিমবঙ্গেরও দেখবে না মুখ ওদের সস্তা পণ্যে আমাদের বাজার সয়লাব হবে কীন্তু বিভিন্ন পরীক্ষার নামে আমাদের পণ্যকে ওরা ঢুকতেই দিবে না যতই বন্ধুত্বের জন্য পাতাও বুক ! ও আচ্ছা ভুলেই তো গেছি এগুলো তো ওদের দাবী না অধিকার তাহলে চুক্তির কি দরকার কোন কারনে কক্ষনোই হবে না এর বিপরীত ওরা আমাদের স্বাধীনতা দিছেনা তাহলে কিসের আবার ট্রানজিট ! তুমি বেড়ুবাড়ি দিবে দক্ষিন তালপট্টি দিবে তবু দিবে না ওরা ক্ষুদ্র তিনবিঘা করিডোর ওদের অঙ্গুলি হেলনে চেন্জ হবে আমাদের সরকার ! কোন কারনে কক্ষনোই হবে না এর বিপরীত ! ওরা আমাগো স্বাধীনতা দিছেনা তাহলে কিসের আবার ট্রানজিট ! ওরা বিনা ট্রানজিট চুক্তিতেই আমাদের দেশের উপর দিয়ে হাঁটবে , গাড়ি চালাবে একসীমান্ত দিয়ে ঢুকে আরেক সীমান্ত দিয়ে বেরুবে এগুলো ওদের দাবি নয় অধিকার তাহলে ট্রানজিটের কি দরকার ?

৪ comments

Skip to comment form

  1. 4
    Vanu

    @ এডমিন
    বিভিন্ন বিষয় এই সাইটে উঠে আসছে, আনন্দের বিষয়। তবে লেখার বানান, শব্দ সংযোজন এবং বাক্য-বিন্যাসের প্রতি মনযোগ দেবার জন্য সম্মানিত লেখকবৃন্দকে সতর্ক হতে বলা দরকার। বাংলা আমাদের ভাষা। এ ভাষাকে সুন্দর ভাবে উপস্থাপন করার যে দায়িত্ব, তা মহান।

  2. 3
    Vanu

    @আবদুস সামাদ
    বাপ-দাদারা কোন আমলে সামনে ঠেলে দিয়েছিল সে বিষয়টা আপনার কমেন্টে প্রযুক্ত হলে বুঝতে সুবিধে হত। সে আমল কি পাকিস্তান নাকি তারও আগের ব্রিটিশ আমল? ট্রানজিট কিংবা পানি কিংবা সমুদ্র বন্দর কিংবা ছিটমহল; এই ইস্যুগুলি পারস্পরিক স্বার্থের ভিত্তিতে ফায়সালা করতে হবে। দুই পক্ষেরই কিছু ছাড় দিতেই হবে। নইলে সমস্যা দূর হবে না। বৃহৎ অর্থনীতির একটি দেশের পাশের ক্ষুদ্র রাষ্ট্রগুলি কিছুটা হলেও প্রভাবিত হয়। এর মধ্যে থেকেই আমাদের দাঁড়ানো শিখতে হবে। অর্থডক্স বৈরিতা কোন ভাল লক্ষণ নয়। স্বাধীনতা ও স্বার্বভৌমত্ব প্রশ্নে শুধু এমোশনাল হয়ে নয়; প্রকৃত ন্যাশনালিজম ভেতরে ও বাইরে লালন করতে হবে।

  3. 2
    মোবাশ্বের আহমেদ

    ধন্যবাদ সামাদ ভাই ।

  4. 1
    আবদুস সামাদ

    বাঘ সারস কে বলল, তোর সাহস তো কম নয়, আমার মুখের ভিতর মাথা ঢুকিয়ে তা বার করে আনলি, আমিতা চিবিয়ে খাই নি, এটাকি তোর পুরষ্কার নয়? গল্পটা মনে পড়ে গেল।আমরাতো পিছনে হাঁটতেই ভাল বাসি। বাপ দাদারা সামনে ঠেলে দিয়ে ছিল, আমরা আবার পিছিয়ে এসে দাঁড়াতে চেষ্টা করে যাচ্ছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.