«

»

Oct ০৪

বিবর্তনের বড় প্রমাণ ‘জিরাফের লম্বা গলা’

লামার্কের যুক্তি হল, জিরাফের গলা লম্বা হয়েছে উঁচু গাছের পাতা খুঁজতে গিয়ে। ডারউইনবাদের যুক্তি হল, জেনেটিক মিউটেশনের ফলে যে জিরাফগুলোর গলা লম্বা হয়ে ছিল সেগুলো প্রতিযোগিতায় টিকে যায়, কারণ উঁচু গাছগুলোর পাতা খেতে লম্বা গলা বিশিষ্ট জিরাফগুলোর সুবিধা হচ্ছিল। এভাবে ক্রমান্বয়ে 'ডারউইনিয়ান সিলেকশন প্রেসার' এর মধ্য দিয়ে জিরাফের গলা লম্বা হয়।

In the early 19th century, Jean-Baptiste Lamarck believed that the giraffe's long neck was an "acquired characteristic", developed as generations of ancestral giraffes strived to reach the leaves of tall trees. This theory was eventually rejected, and scientists now believe that the giraffe's neck arose through Darwinian natural selection—that ancestral giraffes with long necks thereby had a competitive advantage that better enabled them to reproduce and pass on their genes. (১)

Male Giraffe

অর্থাৎ মিউটেশন যদিও একটি রেনডম প্রক্রিয়া তথাপি 'ডিএনএ' একটি বুদ্ধিমান সত্ত্বার মত বুঝতে সক্ষম হয়েছিল যে পর্যায়ক্রমে শুধু উঁচু গলা বিশিষ্ট জিরাফের দিকে মিউটেশন ঘটাতে হবে। কেননা তা না হয়ে এলোপাতাড়িভাবে প্রতিবার শুধু নিচু গলা বিশিষ্ট জিরাফের জন্ম হলে বা একবার উঁচু গলা এবং একবার নিচু গলা বিশিষ্ট জিরাফের জন্ম হলে, জিরাফ বাঁচবে না। এক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় ভূমিকা রেখেছে, ফিমেল জিরাফের ডিম্বানু এবং মেল জিরাফের শুক্রানুতে অবস্থিত ডিএনএ। কেননা তারা তাদের ডিম্বাশয় ও শুক্রাশয়ে থাকা অবস্থায় পর্যবেক্ষণ করল যে তাদের ধারক মেল জিরাফটি প্রতিযোগিতায় টিকতে পারছে না। এ কারণে তারা পরবর্তী বংশধরের গলা যেন লম্বা হয় এমন ভাবে মিউটেশন ঘটালো। wp-monalisa icon

 

তবে, এভাবে চলতে থাকলে এক সময় ফিমেল জিরাফগুলো বিলুপ্ত হবে। কেননা সমবয়সের ও গঠনের একটি মেল জিরাফ একটি ফিমেল জিরাফ থেকে সবসময়ই লম্বা হয়, যেমন মেল জিরাফটি যদি ১৯ ফুট লম্বা হয় সেক্ষেত্রে ফিমেল জিরাফটি ১৬ ফুট লম্বা হয়। প্রায় ৩ ফুট ছোট। সুতরাং একটি ২০ ফুট উঁচু গাছ থেকে ফিমেল জিরাফটি কিভাবে পাতা খাবে সেটাই ভাবনার বিষয়? যদিও এতদিনে হিসেবে ফিমেল জিরাফগুলোর বিলুপ্ত হয়ে যাওয়ার কথা। সুতরাং এদের বিবর্তন নিয়ে নতুন গবেষণা দরকার। যেমন: হতে পারে যে ফিমেল জিরাফটি তার খাওয়ার অভ্যাস পরিবর্তন করে ফেলছে। হয়ত ভবিষ্যতে তারা এতদিনের মেল ডমিনেন্ট ওয়ার্ল্ড থেকে বের হয়ে আসার চেষ্টা করবে তবে এক্ষেত্রে বুদ্ধিমান ডিএনএ কিভাবে তাদেরকে মিউটেশনের মাধ্যমে সহযোগিতা করে সেটাই দেখার বিষয়। অন্যদিকে Giraffoidea গোত্রের অন্য Genus, Okapi-র ডিএনএ আবার তাদের মাথা বর্ধনের দিকে চিন্তা নিবিষ্ট করেনি। যদিও, গাছের পাতা খাবার প্রতিযোগিতায় Giraffe-র সাথে Okapi-র প্রতিযোগিতা হয়ে থাকলে, Okapi-র বিলুপ্ত হওয়ার কথা। কেননা- Okapi-র মাথা তো আর লম্বা হয়নি। আবার, Giraffe-র সাথে যে প্রাণীগুলোর প্রতিযোগিতার কথা ডারউইন ভেবেছিলেন, সেই Kudu এবং Bovidae গোত্রের Impala, Steenbok-ও তাদের আগের গলা নিয়েই দিব্যি বেঁচে আছে। wp-monalisa icon

Okapi

Kudu

Impala

Steenbok

এ কারণে জিরাফ এর গলা কেন লম্বা হল তার বিবর্তনীয় সমাধান এখনো হাইপোথিসিস পর্যায়ে রয়েছে, যেমন হাইপোথিসিস পর্যায়ে আছে Palaeomerycidae থেকে বিবর্তিত হয়ে Giraffoidea এবং Antilocapridae হওয়ার হাইপোথিসিস। তবে, বিবর্তনবাদীদের কাছে এই হাইপোথিসিসগুলোই বড় প্রমাণ। যেটার উদাহরণ তাদের সাথে কথা বলতে গিয়ে বুঝা যায়-

There are two main hypotheses regarding the evolutionary origin and maintenance of elongation in giraffe necks. The "competing browsers hypothesis" was originally suggested by Charles Darwin and only challenged recently.

 

The other main theory, the sexual selection hypothesis, proposes that the long necks evolved as a secondary sexual characteristic, giving males an advantage in "necking" contests  to establish dominance and obtain access to sexually receptive females……However, one objection is that it fails to explain why female giraffes also have long necks. (১)

তদুপরি, এই হাইপোথিসিসগুলো সম্ভবত নিচের প্রশ্নগুলোরও ব্যাখ্যা প্রদান করছে-

১. জিরাফের গলা লম্বা হওয়ার সাথে সাথে কিভাবে তার মাথায় রক্ত পৌছানোর জন্য ক্যারোটিড আর্টারিও লম্বা হল।

২. জিরাফের গলা লম্বা হওয়াকালীন কিভাবে হার্টও এত উঁচুতে রক্ত সঞ্চালনের জন্য বিবর্তিত হয়ে ম্যাসিভ (11 kg, 2 feet long) হয়ে গেল।

৩. জিরাফের গলা যখন লম্বা হল তখন এর মাথা থেকে রক্ত হার্টে নিয়ে আসার রক্তনালী 'জুগুলার ভেইন' এর ভিতর ভাল্ভ তৈরী হল, যেন পানি পান করতে মাথা নিচু করার সময় Huge Volume এর রক্তের প্রেসার মাথায় রক্তক্ষরণ না করতে পারে। 

৪. কিভাবে জিরাফের বিশাল দেহে উৎপন্ন অতিরিক্ত তাপ অপসারিত হওয়ার জন্য ঠিক স্কিনের কালো স্পটগুলোর নিচে 'Complex Blood Vessel এবং Large Sweet Glands' তৈরী হল।

৫. কিভাবে উঁচুতে পৌছে যাওয়া জিরাফের ব্রেইনের সাথে দেহের অন্যান্য অঙ্গের সংযোগ রক্ষার জন্য এর নার্ভ ফাইবারগুলোও বিবর্তিত হয়ে লম্বা হয়ে গেল।

৬. বিশালাকৃতির জিরাফের ওজন ধারণের জন্য কিভাবে তার পায়ের হুফ বিবর্তিত হল।

৭. এবং এতগুলো পরিবর্তন আনার জন্য জিরাফের শুক্রানু ও ডিম্বানুর 'ডিএনএ'-তে যে বিশাল পরিমাণ কোডিং এর পরিবর্তন হওয়ার দরকার কিভাবে সেটা 'Random Mutation' এর মধ্য দিয়ে পর্যায়ক্রমে সংঘটিত হল ইত্যাদি।

 

রেফারেন্স:

১) http://en.wikipedia.org/wiki/Giraffe

২) http://en.wikipedia.org/wiki/Palaeomerycidae

৩) http://en.wikipedia.org/wiki/Okapi

৪) http://en.wikipedia.org/wiki/Kudu

৫) http://en.wikipedia.org/wiki/Impala

৬) http://en.wikipedia.org/wiki/Steenbok

৭) http://en.wikipedia.org/wiki/Antilocapridae

২৫ comments

Skip to comment form

  1. 12
    jannatun nayeem

    সালাম। এই বিবর্তনবাদের যন্ত্রণায় গত তিন বছর ধরে এত রাগ জমেছে বলতে গেলে আপনার পড়তে তিনমাস লাগবে,
    তাই, আপনার সময়ের গুরুত্ব বিবেচনা করে সবুর করলাম… কী  আর করা ?

  2. 11
    সরোয়ার

    ব্যাপক বিনোদন! 

  3. 10
    মুনিম সিদ্দিকী

    বাহ! পড়ে খুব মজা পাওয়া গেল ভাই!!!

  4. 9
    স্রষ্টার সন্ধানে

    গণতন্ত্রের হকারদের কাছে, মানবাধিকারের ঠিকাদারদের কাছে, নারী অধিকারের ফেরিওয়াদের কাছে, সভ্যতার বন্য বাঁদরদের কাছে ডারউইন বিদ্বষীর প্রশ্ন?

    বাঘের লেজটা মাটিতে ঘষে ঘষে ছোট্ট হয়ে বিড়ালের লেজে পরিণত হয়েছে আর লেজের সুত্র ধরে ইয়াহ বড় শরীরটা বিড়ালের শরীরে সংকোচন হয়েছে খাদ্যাভাবে- এটাই তো হওয়া উচিত। তাই নয় কি? বাঘ আর বিড়ালের মধ্যে তফাতটা কিন্তু খুব বেশী নয়। আবার ব্যাঙের পরিপাকতন্ত্রের সাথে মানুষের পরিপাকতন্ত্রের যেহেতু মিল রয়েছে সতুরাং বলা চলে মানুষের পরিপাকতন্ত্র ব্যাঙের পরিপাকতন্ত্র দেখে দেখে নকল করা হয়েছে- আচ্ছা বলুন তো, এমন যুক্তি কতটা গ্রহনযোগ্যতার দাবি রাখে? আদিতে বাদরের লেজ মাটির ঘর্ষণ খেয়ে খেয়ে সেটা খুয়ে গিয়ে নাকি আধুনিক মানুষের রুপান্তর হয়েছে। কিন্তু আশ্চর্য্যের বিষয় বিগত কতক শতক বা হাজার বা লক্ষ বছর গুলোতে এমন ঘটনাটি একবারও পুনরাবৃত্তি হল না কেন? তবে কি ঐ বানর গুলো ভিন্ন প্রজাতির ছিল? বানর তো এখনো রয়েছে আর বানরের লেজও রয়েছে- তাহলে বানর হতে মানুষে রুপান্তর হওয়ার ঘটনাটি আর ঘটছে না কেন? নাহ! বানররা সভ্য মানুষ হওয়ার চাইতে বন-জঙ্গলের থাকাটাই বেশী পছন্দ করছে? বন্য বানদের মধ্যে জেনেটিক্সের আমুল পরিবর্তনটাকে কে আঁটকে রেখেছে- মানুষ হওয়া থেকে? তাছাড়া, ব্যয়বহুল টেস্টটিউব বেবীর কি প্রয়োজন? সদ্য জন্ম হওয়া বানর বাচ্চাটার লেজ ঘটিত হরমোনের বিনাস করে সেটাকে মানব শিশুতে রুপান্তর করলেই তো হয়!

    [নোটঃ আমার দেওয়া লিখাগুলো যে সবাইকে ভাল লাগতেই হবে- এটার আবশ্যকতা নেই। আর লিখাগুলো যে সবারচাইতে বেশী যৌক্তিক হবে- তেমনটি ভাবারও দরকার নেই। বরং, অনেকেরই লিখা এর চাইতে যৌক্তিক হতে পারে এবং মনে রাখা দরকার প্রত্যেক যুক্তির পিছনে যুক্তি এবং যৌক্তিকতা থাকতে পারে। একটি চশমার মাধ্যমেই উদাহরণ টানা যাক, যদি প্রশ্ন করা হয়-এটা কি কাজে লাগে। কেউ হয়ত বলে উঠবে- এটা দেখতে/পড়তে সাহায্য করে চোখকে। আবার কেউ বলবেন- না, এটা মোটেই সাহায্যকারী নয়। আবরা কেউ বলবে- না, তোমারা দু'জনই আমার মতের বিপরীতে। কেননা, এটা ফ্রাশানের অংশ মাত্র। হ্যাঁ যিনি বলেছেন এটা সাহায্য করে, তিনি সত্যই বলেছেন আর যিনি বলেছনে এটা সাহায্য করে না তিনিও সত্য বলেছেন কারণ, চশমা অন্ধলোকের সাহায্যে আসতে পারে না আপাতভাবে। আর যিনি বলেছেন এটা ফ্র্যাশান তিনিও বে-ঠিক নন কারণ, অন্ধব্যক্তি (চোখের অস্বাভাবিকতা ঢাকার জন্য) বা অন্যান্যরা এটাকে ব্যবহার করেত পারে অদৃশ্যত ধূলাময়লা থেকে চোখকে রক্ষা করতে। সকলেই সঠিক হওয়া সত্ত্বেও অধিক গ্রহণযোগ্য বলে কিছু একটা আছে আর সেটাই হল মূল কথা- চশমাটা আসলেই সাহায্যকারী যদি সঠিকভাবে ব্যবহার করা হয়।]
     
    সূত্রঃ "অবিশ্বাসীরা কোথায়" লেখকঃ মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান 
    http://www.oneallah.org/bengali/books.php

    1. 9.1
      আবদুল্লাহ সাঈদ খান

      বানর তো এখনো রয়েছে আর বানরের লেজও রয়েছে- তাহলে বানর হতে মানুষে রুপান্তর হওয়ার ঘটনাটি আর ঘটছে না কেন?

      ভাই, বিবর্তনবাদীদের আইডিয়াটা অনেক ফ্লেক্সিবল। যেহেতু রূপকথায় কোন বাঁধাধরা নিয়ম নেই, এ কারণে তারা বলবে যে মানুষ বানর থেকে আসেনি, তবে মানুষ ও বানর একটি কাল্পনিক পূর্বপুরুষ থেকে এসেছে। সেই কাল্পনিক পূর্বপুরুষটি আবার আরেকটি কাল্পনিক পূর্বপুরুষ থেকে এসেছে। এবং এভাবে চলতে থাকবে, যতক্ষন না তা ডারউনের কাল্পনিক গাছের কাল্পনিক মূল পর্যন্ত যায়।
       

      1. 9.1.1
        স্রষ্টার সন্ধানে

         সেই কাল্পনিক পূর্বপুরুষটি আবার আরেকটি কাল্পনিক পূর্বপুরুষ থেকে এসেছে। এবং এভাবে চলতে থাকবে, যতক্ষন না তা ডারউনের কাল্পনিক গাছের কাল্পনিক মূল পর্যন্ত যায়।

         

  5. 8
    শামস

     কেননা তারা তাদের ডিম্বাশয় ও শুক্রাশয়ে থাকা অবস্থায় পর্যবেক্ষণ করল যে তাদের ধারক মেল জিরাফটি প্রতিযোগিতায় টিকতে পারছে না। এ কারণে তারা পরবর্তী বংশধরের গলা যেন লম্বা হয় এমন ভাবে মিউটেশন ঘটালো।

    হাহাহাহাহা………
     
    কত কষ্ট করে ব্যাখ্যা দাড় করাতে হয়……

    1. 8.1
      আবদুল্লাহ সাঈদ খান

      গোঁমড় ফাঁস হয়ে যাওয়ার ভয়ে এগুলোতো বলাই হয় না। 

  6. 7
    রাতুল

     
     
    ভাই, ছবিগুলো দেখতে খুবই সুন্দর। তবে বানরের ছবি না দেখতে পেরে নিজেকে একটু অসহায় অসহায় লাগছে। পরের বার কিন্তু আমার স্বজনদের (পূর্ব-পুরুষদের) ছবি দিবেন, কইলাম। 

    1. 7.1
      আবদুল্লাহ সাঈদ খান

      শুধু কি পূর্ব-পুরুষ, নানান রঙের ও ঢঙের পূর্ব-পুরুষ।

  7. 6
    ইমরান হাসান

    আহারে ভালবাসা !!শেষ পর্যন্ত প্রকৃতিকেও পুরুষতান্ত্রিক বানিয়ে দিল রে । নারী জিরাফ দের গলা কেন পুরুষ দের মত লম্বা না সেটা নিয়ে আমাদের ডারউইনবাদী নারীবাদী(!) দের আন্দোলন করা উচিত। 

    1. 6.1
      আবদুল্লাহ সাঈদ খান

      "চাই চাই মুক্তি চাই,
      পুংতন্ত্র নিপাত যাক।"
       
       

  8. 5
    পাভেল আহমেদ

    আমি ধরতে পারছি যে ফিমেল জিরাফের গলা কেন মেল জিরাফের থেকে ছোট। মেল জিরাফরা ভালোবেসে ফিমেল জিরাফদেরকে উঁচু গাছের থেকে পাতা নিয়ে খাইয়ে দিত যাতে ফিমেলদের কষ্ট কম হয়। এছাড়া আর কীজন্য ফিমেলদের গলা ছোট হবে ?!?!?!?!?!

    1. 5.1
      নির্ভীক আস্তিক

    2. 5.2
      Jamshed

      ওরে বিনোদন। ডারউনবাদীদের রোমান্টিসিজম থেকে প্রানীকূলও রক্ষা পায় নাই। এগুলোরে মানুষ তো দূরের কথা পশুপাখী পর্যন্ত মাফ করবে না

    3. 5.3
      আবদুল্লাহ সাঈদ খান

      ভালোবাসা???
      এটা আবার কি রে ভাই? বিবর্তনবাদীদের কাছ থেকে আমরা জানলাম প্রকৃতিতে শুধু 'Struggle for existance' এবং 'Survival of the fittest'  এর নীতি চলছে, এখানে আবার ভালবাসা, অলট্রুইজম এগুলো কোথা থেকে এল?

      আচ্ছা? প্রাণীরা বাঁচার চেষ্টাই বা করে কেন? এই প্রবণতাই বা কোথা থেকে আসল?
       

      1. 5.3.1
        শামস

         

         বিবর্তনবাদীদের কাছ থেকে আমরা জানলাম প্রকৃতিতে শুধু 'Struggle for existance' এবং 'Survival of the fittest'  এর নীতি চলছে, এখানে আবার ভালবাসা, অলট্রুইজম এগুলো কোথা থেকে এল?

         
        প্রকৃতি হল 'দাঁত ও নখের' রাজত্ব! টিকে থাকার জন্য এই রাজত্বতে কি সমস্যা যদি উদ্দেশ্যহীন, গন্তব্যহীন হয়! ডকিন্স বলেনঃ
         

        যে মহাবিশ্বকে আমরা অবলোকন করি তার ঠিক এমন গুণাবলীই আমরা আশা করতে পারি যদি তার গোড়ায় না থাকে ডিজাইন, উদ্দেশ্য, খারাপ বা ভাল, কিছুই না কেবল অন্ধ, দয়ামায়াহীন উদাসীনতা। 
         

        1. 5.3.1.1
          আবদুল্লাহ সাঈদ খান

          প্রকৃতি হল 'দাঁত ও নখের' রাজত্ব!

          কিভাবে যে Herbivore টা প্রকৃতিতে টিকে আছে, কে জানে? গাছপালাই বা প্রাণীদের সাথে প্রতিযোগিতায় টিকে আছে কিভাবে?
           
           

  9. 4
    শাহবাজ নজরুল

    আজকাল সাভানায় গাছের উচ্চতা নাকি কমে যাচ্ছে -- তাই জিরাফদের গলা নিচু করে পাতা খেতে হচ্ছে। তাহলে কি আবার তাদের গলা ছোটো হয়ে যাবে?

    1. 4.1
      আবদুল্লাহ সাঈদ খান

      শাহবাজ ভাই,
      হতে পারে। বিবর্তনে কোন কিছুই অসম্ভব নয়। 

  10. 3
    শাহবাজ নজরুল

    আবার, Giraffe-র সাথে যে প্রাণীগুলোর প্রতিযোগিতার কথা ডারউইন ভেবেছিলেন, সেই Kudu এবং Bovidae গোত্রের Impala, Steenbok-ও তাদের আগের গলা নিয়েই দিব্যি বেঁচে আছে।

    আসেন সবাই একটু হাসি…; বিবর্তনবাদীরা অন্তত কিছু হাসির খোরাক দিয়ে আমাদের স্বাস্থ্য ঠিক রেখেছে। এজন্যে অন্তত আমি তাদের কাছে কৃতজ্ঞ।

  11. 2
    শাহবাজ নজরুল

    that ancestral giraffes with long necks thereby had a competitive advantage that better enabled them to reproduce and pass on their genes.

    এটা হচ্ছে চক্রিক যুক্তি। আমরা বের করতে চাইছি যে জিরাফের গলা লম্বা কেন -- আর উত্তরে বলা হচ্ছে যাদের লম্বা গলা আছে তারাই প্রতিযোগিতাতে টিকে থাকবে -- আর সেজন্যেই জিরাফের গলা লম্বা। এর চাইতে অবৈজ্ঞানিক যুক্তি কি হতে পারে আমার মাথায় আটেনা। সেজন্যে জোর করে ভ্যারিয়েশন, মিউটেশন ইত্যাদির আশ্রয়ে যাওয়া। বেশ কয়েকটা প্রোগ্রাম দেখলাম জেনেটিক্স এর উপরে। ৩/৪ রকম জটিল রোগের কারণ কোনভাবেই ধরতে না পেরে রোগীরা জেনেটিক সিকয়েন্সিং এর সাহায্য নেন।
    প্রায় ৫/৬ মাস ধরে পরীক্ষা করা হলো অসুস্থ রোগীদের ঠিক কোন জিনে সমস্যা আছে তা বের করতে। প্রত্যেক ক্ষেত্রে দেখা গেল কেবল একটা জিনের (কয়েক বিলিয়ন জিনের মধ্যে) মিউটেশনের জন্যে রোগীদের দেহে বেঁধেছে মরণ ব্যাধি। ফলাফল সহজ। স্বাভাবিক জিন সিকোয়েন্স থেকে সামান্য বিচ্যুতি ডেকে আনতে পারে মরণ ব্যাধি, অর্থাত destruction or demise of species। অথচ জিন মিউটেশন দিয়েই ব্যাখ্যা দেয়া হচ্ছে origin of species এর!!??!! একজন সাধারণ মস্তিষ্কের অধিকারী লোক কিভাবে এই কথা বলতে পারে আমি বুঝিনা!!!

    1. 2.1
      আবদুল্লাহ সাঈদ খান

      A neo-Darwinist who wants to determine whether vertebrate forelimbs are homologous must first determine whether they are derived from a common ancestor. In other words, there must be evidence for common ancestry before limbs can be called homologous. But then to turn around and argue that homologous limbs point to common ancestry is a vicious circle: Common ancestry demonstrates homology which demonstrates common ancestry.

      [Jonathan Wells; Homology and circular reasoning; Icons of evolution; page -- 63]

  12. 1
    এস. এম. রায়হান

    লামার্কের যুক্তি হল, জিরাফের গলা লম্বা হয়েছে উঁচু গাছের পাতা খুঁজতে গিয়ে।

    তার মানে ছোট গলা-ওয়ালা জিরাফ আগে থেকেই ছিল? পরবর্তীতে উঁচু গাছের পাতা খুঁজতে গিয়ে তাদের গলা লম্বা হয়েছে? মাথায় ধরছে না গো  বিবর্তনবাদী মোল্লারা উঁচু গাছের পাতা খুঁজতে গিয়ে তাদের গলা জিরাফের মতো লম্বা করতে পারবে কিনা!

    1. 1.1
      আবদুল্লাহ সাঈদ খান

      রায়হান ভাই,
      সমস্যা নেই। বিবর্তনবাদ তার তত্ত্বে যে কোন গল্প একোমোডেট করতে পারে। যেমন, ধরুন তারা বলবে ছোট জিরাফ আগে ছিল না তবে ছিল জিরাফয়েড। এবং একটি স্স্কাল বা স্কালের কিছু অংশ বা পায়ের একটি হাড় ইত্যাদির উপর ভিত্তি করে গড়ে ওঠা বিভিন্ন Extinct Giraffoid এর উদাহরণ দিয়ে দিবে। তবে একই সময়ে জিরাফয়েডদের সাথে থাকা অন্যান্য Antilocapridae গোত্রে কিভাবে গলা ছোট রয়ে গেল তার জন্য অন্য কোন ব্যাখ্যা দাঁড় করিয়ে দেবে।  

Leave a Reply

Your email address will not be published.